আইনওবিচারমন্ত্রক

রাষ্ট্রপতি চারটি অধ্যাদেশ জারি করেছেন

Posted On: 21 FEB 2019 6:23PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

 

ভারতের রাষ্ট্রপতি আজ (২১শে ফেব্রুয়ারি) চারটি অধ্যাদেশ জারির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন। এই অধ্যাদেশগুলি হল – মুসলিম মহিলাদের বিবাহ সুরক্ষা সংক্রান্ত ‘দ্য মুসলিম উইমেন (প্রোটেকশন অফ রাইট্‌স অন ম্যারেজ) সেকেন্ড অর্ডিন্যান্স, ২০১৯’; ‘দ্য ইন্ডিয়ান মেডিকেল কাউন্সিল (অ্যামেন্ডমেট) সেকেন্ড অর্ডিন্যান্স, ২০১৯’; ‘দ্য কোম্পানিজ (অ্যামেন্ডমেন্ট) সেকেন্ড অর্ডিন্যান্স, ২০১৯’ এবং চিট ফান্ড নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত ‘দ্য ব্যানিং অফ আনরেগুলেটেড ডিপোজিট স্কিম্‌স অর্ডিন্যান্স, ২০১৯’।

২০১৯-এর মুসলিম মহিলাদের বিবাহ সুরক্ষা সংক্রান্ত অধ্যাদেশটি কার্যকর রাখার লক্ষ্যে এই দ্বিতীয় অধ্যাদেশটি জারি করা হয়েছে। এই অধ্যাদেশের মাধ্যমে তিন তালাক প্রথাকে বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। এই আইন বা অধ্যাদেশ লঙ্ঘন করলে, তিন বছরের জেল অথবা জরিমানা হতে পারে। এর ফলে, মুসলিম মহিলারা তালাক-এ-বিদ্দাত-এর মতো প্রথা থেকে সুরক্ষা পাবেন। এছাড়া, তাঁদের জন্য খোরপোশ এবং শিশু সন্তানদের হেফাজতে রাখার অধিকারের সংস্থানও এই আইন তথা অধ্যাদেশে রয়েছে।

ভারতীয় মেডিকেল কাউন্সিল সংক্রান্ত দ্বিতীয় অধ্যাদেশের মাধ্যমে, কাউন্সিলের পরিচালকমণ্ডলীর হাতে প্রদত্ত ক্ষমতা অব্যাহত রাখা হবে। মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার পরিবর্তে, নতুন করে কাউন্সিল গঠিত না হওয়া পর্যন্ত দু’বছরের জন্য ইন্ডিয়ান মেডিকেল কাউন্সিল গঠন করা হয়েছে। সারা দেশে, মেডিকেল শিক্ষা ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা, দায়বদ্ধতা, উত্তরদায়িতা এবং গুণমানের উন্নয়নের লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, দেশে ব্যবসার সুযোগ বৃদ্ধির যে উদ্যোগ সরকার নিয়েছে, তার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে এবং কর্পোরেট ক্ষেত্রে প্রশাসনিক ব্যবস্থাকে জোরদার করতে কোম্পানি আইনের দ্বিতীয় অধ্যাদেশটি জারি করা হয়েছে। এছাড়া, সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে চিট ফান্ডের বাড়বাড়ন্ত প্রতিরোধে অনিয়ন্ত্রিত সঞ্চয় সংস্থাগুলির কাজকর্ম বন্ধ করতে এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশটি জারি করা হয়েছে। এর ফলে, সাধারণ মানুষের কষ্টার্জিত অর্থ যাতে বেআইনিভাবে বাজার থেকে সংগ্রহ করে নয়ছয় প্রতিরোধ করা যায়, সেই লক্ষ্যেই এ সংক্রান্ত আইন / অধ্যাদেশটি জারি করা হয়েছে।

 

CG/PB/DM



(Release ID: 1565866) Visitor Counter : 14

Read this release in: English